যে কর্মকর্তাদের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে তারা দেশপ্রেমিক

আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সাত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা। তিনি বলেন, যে কর্মকর্তাদের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে, তারা সবাই দক্ষ ও দেশপ্রেমিক। আবার এই নিষেধাজ্ঞা নিয়ে নানা গুজব ছড়ানো হচ্ছে। তাই বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বিবেচনায় নিয়ে দ্রুতই যুক্তরাষ্ট্র সরকার ওই কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

আজ সোমবার জাতীয় সংসদে অনির্ধারিত আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, হঠাৎ করে কেন এই নিষেধাজ্ঞা তা বোধগম্য নয়। আমি বিশ্বাস করি, দেশের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা দেশ ও দেশের মানুষের নিবেদিতপ্রাণ হিসেবে কাজ করেন। তবে আমি বলব না, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সব সদস্য ধোয়া তুলসীপাতা। কিন্তু যাদের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে, তাদেরকে অত্যন্ত দক্ষ ও দেশপ্রেমিক কর্মকর্তা হিসেবে জানি। যুক্তরাষ্ট্র কেন এই নিষেধাজ্ঞা দিল, তা নিয়ে সরকার কাজ করছে। আমরা বিশ্বাস করি, যুক্তরাষ্ট্র সরকার দেশপ্রেমিক কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে যে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে তা প্রত্যাহার করে নেবে।

একটি গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের উদ্বৃতি দিয়ে আবু হোসেন বাবলা বলেন, 'যুক্তরাষ্ট্রের ওই নিষেধাজ্ঞার পর দেশে নানা গুজবের ডালপালা ছড়ানো হচ্ছে। প্রতিদিনই আসছে নানা খবর। প্রতিদিনই শোনা যাচ্ছে অমুকের ভিসা বাতিল হয়েছে, তমুক ঢুকতে পারেননি। একই সঙ্গে এখানে-সেখানে নানা আলোচনা রয়েছে। এই নিষেধাজ্ঞায় সরকার কি চাপে পড়েছে? সামনের দিনগুলোতে সরকার কি আরো বড় কূটনৈতিক চাপে পড়তে যাচ্ছে?’ বিদেশে অবস্থানরত কয়েকজন ব্যক্তি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ধরনের গুজব রটাচ্ছে। আর দেশের কতিপয় মানুষ সেই গুজবের ডালপালা সমাজে ছড়িয়ে দিচ্ছে। একের পর এক গুজব রটছে সরকারের একাধিক মন্ত্রী ও বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা বাতিলের। তবে ব্যক্তির ভিসা বাতিল সম্পর্কে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও দূতাবাস কোনো তথ্য প্রকাশ করে না। ফলে এ ধরনের গুজবের সত্যতা নেই।

রাজনীতিবিদদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বিরোধীদলীয় এমপি বলেন, দেশের কতিপয় দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দলের নেতারা এসব বিষয় নিয়ে নেতিবাচক কথা বলছেন। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক। আমরা ভিন্ন ভিন্ন দল ও মতের হতে পারি। তবে রাষ্ট্রের বৃহত্তর স্বার্থে সবাইকে আরো দায়িত্বশীল ও ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। রাজনৈতিক নেতাদের বলব, আপনারা এমন বক্তব্য দেবেন না, যেটাতে বিশ্বদরবারে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হয়।
এই বিভাগের আরও খবর
উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণে পরিবেশ রক্ষায় গুরুত্ব দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণে পরিবেশ রক্ষায় গুরুত্ব দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

সমকাল
এখন জেগে ওঠার গান গাইতে হবে: ফখরুল

এখন জেগে ওঠার গান গাইতে হবে: ফখরুল

মানবজমিন
সাহস থাকলে নির্বাচন করুক, পারলে আমরা প্রতিরোধ করব: গয়েশ্বর

সাহস থাকলে নির্বাচন করুক, পারলে আমরা প্রতিরোধ করব: গয়েশ্বর

ভোরের কাগজ
ধামরাইয়ে অগ্নিকাণ্ডে ১২টি ঘর পুড়ে ছাই

ধামরাইয়ে অগ্নিকাণ্ডে ১২টি ঘর পুড়ে ছাই

জনকণ্ঠ
বার কাউন্সিল নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে

বার কাউন্সিল নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে

বণিক বার্তা
গোপালগঞ্জ স্বর্ণের দোকানে চুরি, ২০০ ভরি স্বর্ণ লুট

গোপালগঞ্জ স্বর্ণের দোকানে চুরি, ২০০ ভরি স্বর্ণ লুট

মানবজমিন
ট্রেন্ডিং
  • ইন্দোনেশিয়ার নিষেধাজ্ঞায় তেলের মূল্য আকাশছোঁয়া

  • অবিশ্বাস্য কীর্তিতে হাজার রানের ক্লাবে এনামুল বিজয়

  • স্বাধীনতাবিরোধীরা চায় না দেশ এগিয়ে যাক: প্রধানমন্ত্রী

  • 'স্পেশাল' গোলে মেসিকে টপকে গেলেন সুয়ারেজ

  • রোজায় নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে মাঠে থাকবে ১০ ভ্রাম্যমাণ আদালত

  • জামায়াতের সাবেক এমপি খালেকসহ দুজনের ফাঁসি

  • ১২৫ টাকায় সয়াবিন তেল বিক্রি সম্ভব, গোলাম রাব্বানীর স্ট্যাটাস

  • আত্মহত্যাচেষ্টা, ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে কিশোরী উদ্ধার পুলিশের

  • এত জিপিএ-৫, ভর্তি হবেন কোথায়

  • যেভাবে 'গাঙ্গুবাঈ' হয়ে উঠেছিলেন আলিয়া