হজযাত্রীর পদচারণায় মুখরিত মিনা: হজ মঙ্গলবার

পবিত্র মক্কা নগরী থেকে ৮ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত মিনা প্রান্তর। হজ পালনকারীরা সবাই আজ মিনায় পৌঁছবে। লাখো ধর্মপ্রাণ মুসলমানের পদচারণায় মুখরিত মিনা প্রান্তর। আজ সোমবার (৮ জিলহজ) জোহর থেকে আরাফার দিন (আগামীকাল) ফজর পর্যন্ত মিনায় অবস্থান করা সুন্নত। এখানে হজ পালনকারীরা ৫ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করবেন।

মিনাগামী সবার উদ্দেশ্য একটাই- আগামীকাল ফজর নামাজ পড়ে সম্ভব হলে গোসল করে কিংবা ওজু করেই হজের মূল কাজ আরাফার ময়দানে গিয়ে উপস্থিত হবে। ফজর নামাজ আদায় করে মিনা থেকে ১৪ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত ঐতিহাসিক আরাফাতের ময়দানে রওয়ানা হবে তারা। মিনা থেকে আরাফা প্রান্তর তালবিয়ার ‘লাব্বাইক’ ধ্বনি এবং তাকবির, তাসবিহ-তাহলিলে মুখরিত হবে মিনা ও আরাফা প্রান্তর।

মিনা প্রান্তরে অবস্থিত লক্ষাধিক তাঁবুতে অবস্থান করছেন হজপালনকারীরা। নামাজ, তাসবিহ-তাহলিলের মাধ্যমে সময় অতিবাহিত করবে ধর্মপ্রাণ মুসলমান। তাঁবুতে তাঁবুতে চলছে আজান-ইকামত ও নামাজ।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসল্লিদের জন্য লক্ষাধিক শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত তাঁবু স্থাপন করে আবাসনের ব্যবস্থা করেছে সৌদি সরকার। তাঁবুর বাইরে ছোট ছোট ড্রামভর্তি খাবারের পানি। এ তাঁবুতেই ৮ জিলহজ জোহর থেকে ৯ জিলহজ ফজর পর্যন্ত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করবে এবং অবস্থান করবে হজ পালনকারীরা।

৯ জিলহজ ফজরের পর থেকেই ধর্মপ্রাণ মুসলমান রওয়ানা হবে আরাফাতের ময়দানের উদ্দেশ্যে। সেখানে হজপালনকারীরা অবস্থান নেবে জাবালে রহমত, মসজিদে নামিরাসহ আরাফাতের বিশাল ময়দানে।

জোহরের নামাজের আগেই মুসলিম উম্মাহ পৌঁছে যাবে আরাফাতের ময়দানে। কেননা আরাফাতের ময়দানে উপস্থিত হওয়ায়ই হলো হজের মূল আনুষ্ঠানিকতা।
জোহরের পর মসজিদে নামিরা থেকে হজের খুতবা প্রদান করা হবে। এবারের খুতবা প্রদান করবেন সৌদি আরবের সিনিয়র উলামা কাউন্সিলের সদস্য শায়খ ড. ইউসুফ বিন মুহাম্মদ বিন সাঈদ।

উল্লেখ্য, জাবালে রহমত নামক পাহাড় থেকে আগে হজের খুতবা প্রদান করা হতো। প্রায় ২০০ ফুট উচ্চতায় পাহাড়ের পূর্ব দিকের পাথরের সিঁড়িতে একটি মঞ্চ ও মিম্বার ছিল। সে সিঁড়ির ৬ষ্ঠ ধাপে দাঁড়িয়ে ৯ জিলহজ হজের খুতবা প্রাদান করা হতো।

বর্তমানে সেই মঞ্চ ও মিম্বার নেই। এখন জাবালে রহমত থেকেও হজের খুতবা দেওয়া হয় না। এখন তা প্রদান করা হয় মসজিদে নামিরা থেকে। মাইকের মাধ্যমে দেওয়া এ খুতবা এখন স্যাটেলাইটের মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী সম্প্রচার করা হয়।

মুসলিম উম্মাহর দুনিয়া ও পরকালীন জীবনের কল্যাণ ও দিক-নির্দেশনায় আসবে এ খুতবা থেকে। মুসলিম উম্মাহর চলমান সংকট ও উত্তরণের উপায় সম্পর্কেও গুরুত্বপূর্ণ বয়ান পেশ করা হবে। বিশ্বের বিভিন্ন প্রসঙ্গের পাশাপাশি ধর্মীয় বিভিন্ন বিধি বিধানের আলোচনা থাকবে হজের খুতবায়।
এই বিভাগের আরও খবর
ট্রাম্পের ওপর কে গুলি চালিয়েছে জানালো কর্তৃপক্ষ

ট্রাম্পের ওপর কে গুলি চালিয়েছে জানালো কর্তৃপক্ষ

নয়া দিগন্ত
উত্তরপ্রদেশে বজ্রপাতে এক দিনে ৩৭ জনের মৃত্যু

উত্তরপ্রদেশে বজ্রপাতে এক দিনে ৩৭ জনের মৃত্যু

নয়া দিগন্ত
ইউক্রেনজুড়ে রাশিয়ার ব্যাপক হামলায় নিহত বেড়ে ৪১

ইউক্রেনজুড়ে রাশিয়ার ব্যাপক হামলায় নিহত বেড়ে ৪১

কালের কণ্ঠ
যুক্তরাজ্যের প্রথম নারী মুসলিম আইনমন্ত্রী শাবানা

যুক্তরাজ্যের প্রথম নারী মুসলিম আইনমন্ত্রী শাবানা

ভোরের কাগজ
গাজায় উড়োজাহাজ থেকে খাদ্য ফেললো সৌদি ও জর্ডান

গাজায় উড়োজাহাজ থেকে খাদ্য ফেললো সৌদি ও জর্ডান

মানবজমিন
যেসব চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বেন ইরানের নতুন প্রেসিডেন্ট মাসুদ

যেসব চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বেন ইরানের নতুন প্রেসিডেন্ট মাসুদ

দৈনিক ইত্তেফাক
ট্রেন্ডিং
  • ভালোবাসা দিবসে পরী মনির ‘বুকিং’

  • নির্বাচনের আগে পাকিস্তানে জোড়া বিস্ফোরণে নিহত ২৮

  • ভিসা পদ্ধতি পুরোপুরি তুলে নিলো যে দেশ

  • শন্তিপূর্ণভাবে মানুষ যাতে ভোট দিতে পারে সে ব্যবস্থা করেছি: প্রধানমন্ত্রী

  • ২০৩৫ সালের মধ্যে চীনের পারমাণবিক অস্ত্র বাড়বে তিন গুণ

  • তানজানিয়ায় প্লেন দুর্ঘটনায় নিহত ১৯

  • ব্যাংকে ৫ কোটি টাকার বেশি থাকলে বেশি কর

  • কাতার বিশ্বকাপে ফিরছে জিদানের সেই ভাস্কর্য

  • ইন্দোনেশিয়ার নিষেধাজ্ঞায় তেলের মূল্য আকাশছোঁয়া

  • অবিশ্বাস্য কীর্তিতে হাজার রানের ক্লাবে এনামুল বিজয়