News

ধর্ষণ নিয়ে সাংসদ রেজাউলের তেঁতুল–তত্ত্ব

November 21, 2020

জাতীয় গ্রিড থেকে বিদ্যুৎ এনে কিংবা জেনারেটর চালু করে বাইরের অন্ধকার দূর করা যায়। কিন্তু মানুষের মনের অন্ধকার দূর করা কঠিন। জাতীয় সংসদের সদস্য হয়ে বাংলাদেশ রাষ্ট্রের সংবিধান রক্ষার শপথ নেওয়ার পরও যে মনের অন্ধকার দূর হয় না, তার প্রমাণ বগুড়া-৭ আসনের স্বতন্ত্র সাংসদ মো. রেজাউল করিম ওরফে বাবলু।

ধর্ষণের মহামারি বন্ধে গত মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) জাতীয় সংসদে নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ (সংশোধন) বিল, ২০২০ পাস হয়। এতে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে। ধর্ষণবিরোধী আন্দোলনের মুখে রাষ্ট্রপতি ১৩ অক্টোবর যে অধ্যাদেশ জারি করেছিলেন, এর মাধ্যমে তা আইনে পরিণত হলো। আইনে বলা হয়েছে, আক্রান্ত নারীকে ‘ধর্ষিতা’ না বলে ‘ধর্ষণের শিকার’ বলতে হবে।