প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এরদোয়ানের প্রতিদ্বন্দ্বী কে এই ‘তুরস্কের গান্ধী’

তুরস্কের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানকে চ্যালেঞ্জ জানাতে দেশটির বিরোধীরা অবশেষ একক প্রার্থী ঠিক করলেন। তাঁর নাম কামাল কিলিচদারোগ্লু। তিনি ‘তুরস্কের গান্ধী’ নামে পরিচিত।

আগামী ১৪ মে তুরস্কে প্রেসিডেন্ট ও পার্লামেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচন সামনে রেখে দেশটির ছয়টি বিরোধী দল জোট গঠন করে। কিন্তু এই জোট বর্তমান প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের বিপক্ষে লড়ার জন্য একক প্রার্থী ঠিক করতে পারছিল না। এ নিয়ে নিয়ে তীব্র তর্কবিতর্কের পর গতকাল সোমবার ৬ দলীয় বিরোধী জোটের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে কিলিচদারোগ্লুর নাম আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা হয়।

৭৪ বছর বয়সী কিলিচদারোগ্লু তুরস্কের রিপাবলিকান পিপলস পার্টির (সিএইচপি) চেয়ারম্যান। সিএইচপি একটি মধ্য-বামপন্থী দল। এটি তুরস্কের প্রধান ধর্মনিরপেক্ষ বিরোধী দল।

সিএইচপি প্রতিষ্ঠা করেন আধুনিক তুরস্কের রূপকার মোস্তফা কামাল আতাতুর্ক। তুরস্কের প্রাচীনতম এই রাজনৈতিক দল গত শতকের নব্বইয়ের দশক থেকে কেন্দ্রীয় ক্ষমতার বাইরে রয়েছে।

২০১০ সাল থেকে সিএইচপির নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন কিলিচদারোগ্লু। তিনি তাঁর দলের ‘অনমনীয় অবস্থান’ বদল করেছেন। ডানপন্থী দলগুলোর সঙ্গে তিনি জোট করেছেন। স্কুল ও কর্মক্ষেত্রে নারীদের পর্দা করার অধিকার সমর্থন করেছেন।

কিলিচদারোগ্লুর জন্ম ১৯৪৮ সালে। তিনি একজন অর্থনীতিবিদ। রাজনীতিতে নাম লেখানোর আগে তিনি আমলা হিসেবে কাজ করেছেন। তিনি ২০০২ সালে পার্লামেন্ট সদস্য নির্বাচিত হন।

সিএইচপি-প্রধানের সাবেক ঘনিষ্ঠ সহকর্মী রিজা সেলিককোলের ভাষ্যমতে, কিলিচদারোগ্লু খুবই পরিশ্রমী, অত্যন্ত নিয়মনিষ্ঠ একজন মানুষ। অন্যদিকে, মৃদুভাষী আচরণের জন্য অনেকে তাঁকে ‘তুরস্কের গান্ধী’ বলে অভিহিত করেন।

তুরস্কের বর্তমান প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান একজন ‘ক্যারিশমাটিক’ নেতা হিসেবে পরিচিত। তাঁর রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি আগ্রাসী। এরদোয়ানের চেয়ে পুরোপুরি ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গির মানুষ কিলিচদারোগ্লু। তুরস্কের লোকজন তাঁকে শান্ত স্বভাবের মানুষ হিসেবে বর্ণনা করেন। তাঁদের ভাষ্য, ভারতীয় স্বাধীনতাসংগ্রামের নেতা, অহিংস আন্দোলনের পুরোধা মহাত্মা গান্ধীর সঙ্গে কিলিচদারোগ্লুর সাদৃশ্য রয়েছে।

বিরোধী জোটের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে নাম ঘোষণার পর গতকাল কিলিচদারোগ্লু তাঁর সমর্থকদের বলেন, ‘আমাদের টেবিল হলো শান্তির টেবিল। দেশকে সমৃদ্ধি, শান্তি ও আনন্দের দিনে নিয়ে যাওয়াই আমাদের একমাত্র লক্ষ্য।’

প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে ঐক্যের ভিত্তিতে, আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে দেশ পরিচালনার অঙ্গীকার করেছেন কিলিচদারোগ্লু। অবশ্য কিলিচদারোগ্লুর কতিপয় সহযোগীর আশঙ্কা, ক্ষমতায় যাওয়ার সক্ষমতা তাঁর নেই।
এই বিভাগের আরও খবর
চীনের উপর নির্ভরশীলতা কমিয়ে এখন রাশিয়ার দিকে ঝুঁকছে মিয়ানমার

চীনের উপর নির্ভরশীলতা কমিয়ে এখন রাশিয়ার দিকে ঝুঁকছে মিয়ানমার

মানবজমিন
পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ

পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ

যুগান্তর
রমজানে আল-আকসায় নামাজ পড়তে দিতে ইসরায়েলকে আহ্বান যুক্তরাষ্ট্রের

রমজানে আল-আকসায় নামাজ পড়তে দিতে ইসরায়েলকে আহ্বান যুক্তরাষ্ট্রের

যুগান্তর
প্রেসিডেন্ট ক্ষমা করলেও তা গ্রহণ করবেন না ইমরান খান

প্রেসিডেন্ট ক্ষমা করলেও তা গ্রহণ করবেন না ইমরান খান

মানবজমিন
রাখাইন রাজ্যে আরাকান আর্মির হাতে ৮০ জান্তা সেনা নিহত

রাখাইন রাজ্যে আরাকান আর্মির হাতে ৮০ জান্তা সেনা নিহত

বণিক বার্তা
এশিয়া-প্যাসিফিকের ভূমিকা জোরালো করবে চীন-রাশিয়া জোট 

এশিয়া-প্যাসিফিকের ভূমিকা জোরালো করবে চীন-রাশিয়া জোট 

নয়া দিগন্ত
ট্রেন্ডিং
  • ভালোবাসা দিবসে পরী মনির ‘বুকিং’

  • নির্বাচনের আগে পাকিস্তানে জোড়া বিস্ফোরণে নিহত ২৮

  • ভিসা পদ্ধতি পুরোপুরি তুলে নিলো যে দেশ

  • শন্তিপূর্ণভাবে মানুষ যাতে ভোট দিতে পারে সে ব্যবস্থা করেছি: প্রধানমন্ত্রী

  • ২০৩৫ সালের মধ্যে চীনের পারমাণবিক অস্ত্র বাড়বে তিন গুণ

  • তানজানিয়ায় প্লেন দুর্ঘটনায় নিহত ১৯

  • ব্যাংকে ৫ কোটি টাকার বেশি থাকলে বেশি কর

  • কাতার বিশ্বকাপে ফিরছে জিদানের সেই ভাস্কর্য

  • ইন্দোনেশিয়ার নিষেধাজ্ঞায় তেলের মূল্য আকাশছোঁয়া

  • অবিশ্বাস্য কীর্তিতে হাজার রানের ক্লাবে এনামুল বিজয়